পুদিনা পাতার স্বাস্থ্য উপকারিতা

 


আধুনিক পৃথিবী প্রযুক্তি নির্ভর হওয়ায় গবেষণা ক্ষেত্রে লক্ষণীয় পরিবর্তন এসেছে। অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি গবেষণায় নতুন মাত্রা এনে দিয়েছে। এরই কল্যানে প্রাচীন কালের অনেক গবেষণা যেমন ভুল প্রমাণিত হচ্ছে তেমনি নতুন নতুন অনেক তথ্যও বেরিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় পুদিনাপাতার ভেষজ গুনাগুন নিয়ে গবেষণায় উঠে এসেছে অনেক গুণাবলি। পুদিনা পাতার বৈজ্ঞানিক নাম 'Mentha spicata(মেন্থা স্পিকাটা)। প্রাচীন কাল থেকেই ভেষজ উদ্ভিদ হিসাবে এটি ব্যবহার হয়ে আসছে। শুধু রোগ নিরাময়ে নয়। রান্নায় সুগন্ধি ও রূপচর্চায়ও এর ব্যবহার রয়েছে। চা সাথে পুদিনা পাতার ব্যবহার আজকাল প্রচলিত হয়ে উঠেছে। তাই এই পাতার আরও কিছু গুণাবলি আজ তুলে ধরব।

ক্যানসার প্রতিরোধক-পুদিনা পাতায় মনোটারপিন নামক উপাদান বিদ্যমান। এটি স্তন, অগ্ন্যাশয় ও লিভারে ক্যানসার হওয়া প্রতিরোধ করে। এছাড়াও এটি নিয়মিত খেলে এটি ফুসফুস, কোলন ও ত্বকের ক্যানসার প্রতিরোধেও কার্যকর।

পেটের সমস্যায়- পুদিনা পাতায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস। যা দীর্ঘস্থায়ী বদহজম, পেটের ব্যাথা ও পেটের অন্যান্য সমস্যা দূরীকরণে কার্যকর।

অ্যান্টিবায়োটিক- এই পাতার রস ত্বকের সংক্রমণকে ঠেকাতে অ্যান্টিবায়োটিকের কাজ করে। শরীরে ব্যাকটেরিয়া জনিত বিশ্রী দুর্গন্ধ, উকুননাশক হিসেবে, ঘামাচি, অ্যালার্জি ও মুখের দুর্গন্ধ দুর করতে পুদিনা পাতা কার্যকর।

হাঁপানি- পুদিনায় রোজমেরিক অ্যাসিড নামের এক ধরনের উপাদান বিদ্যমান যা প্রাকপ্রদাহী পদার্থ তৈরিতে বাধা দেয়। ফলে হাঁপানি হয় না। এ ছাড়াও এর রস প্রোস্টসাইক্লিন তৈরিতে বাধা দেয়। ফলে শ্বাসনালী পরিষ্কার থাকে। সর্দি হলে নাক বুজে যাওয়া, শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো মারাÍক কষ্ট দূরীকরণে কার্যকর।

এ ছাড়াও এর কিছু উপকারিতা

  • তাৎক্ষণিক যে কোনও ব্যথা থেকে রেহাই পেতে পুদিনা পাতার রস খুব উপকারী।
  • শরীরের ব্যথা দূর করতে পুদিনা পাতার চা খুব কাজে দেয়।
  • খালি পেটে মধু ও লবণ মিশিয়ে পুদিনা বাটা খেলে কৃমি সেরে যায়।
  • পুদিনা পাতা চিবিয়ে বিছার কামড়ের জায়গায় লাগালে কামড়ের কষ্ট বা ব্যথা দূর হবে।
  • মাইগ্রেন বা আধকপালে মাথা ধরায় পুদিনাপাতা বেটে মাথায় লাগালে মাথাব্যথা ভালো হয়।
  • যাদের বুক ধড়ফড় করে তারা পুদিনাপাতা খেলে উপকার হবে।
  • পুদিনা মেয়েদের রক্তশূন্যতা পূরণ করে, মায়ের বুকে দুধ বাড়ে।
  • মেয়েদের অনিয়মিত পিরিয়ডের যন্ত্রণা থেকে সেরে ওঠার জন্য পুদিনা পাতা বেশ উপকারী।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য